ব্যাকলিংক কি এবং কেন এই ব্যাকলিংক, লিঙ্ক বিল্ডিং কি এবং এর কিছু উপায়, সোশাল বুকমারকিং, ফোরাম পোস্টিং-৬ষ্ঠ ক্লাস

link-building-done-right

সবাইকে স্বাগতম জানাচ্ছি আমাদের প্রথম “এসইও লার্নিং বিডি”এর ৬ষ্ঠ ক্লাশে।

 

আমাদের সিলেবাস অনুযায়ী আজকের বিষয় হচ্ছে : What is Back link, Why we need back link, What is Link building and some methods, Social Bookmark, Forum Posting.

 

  • ব্যাকলিংক কি এবং কেন এই ব্যাকলিংকঃ-

 

এই বিষয়টি নিয়ে লিখেছেন সজ়ীব ভাই-

 

ব্যাকলিংক এর মানে হলো একটি সাইট থেকে আপনার সাইটের জন্য লিংক পাওয়া।মনে করুন আপনার একটি ওয়েব সাইট আছে এবং সেই সাইটের লিংকটি আপনি অন্য একটি সাইটে রাখলেন।তাহলে আপনি আপনার সাইটের জন্য একটি ব্যাকলিংক পাবেন সেই সাইট থেকে যেখানে আপনি আপনার সাইটের লিংক দিয়েছিলেন।

আপনার সাইট যদি A হয় এবং আপনি যে সাইটে আপনার সাইটের লিংকটি দিবেন সেটি যদি B হয় তাহলে ব্যাকলিং হিসাবে বলতে গেলে আপনি B সাইট থেকে একটি ব্যাকলিংক পেলেন।এভাবে আপনি আপনার সাইটের লিংক যতগুলো সাইটে দিবেন আপনি ততো ব্যাকলিংক পাবেন।আর সার্চ ইন্জিন অপটিমাজেশন এ এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসাবে ধরা হয়।

অর্থ্যাৎ আমরা এক কথায় বলতে পারি যে’অন্য সাইট থেকে আমরা আমাদের নিজেদের সাইটে যে ইনকামিং লিংক পাই তাকে ব্যাকলিংক বলে”।

লিংক

লিংক

 

কেন এই ব্যাকলিংক -

 

ব্যাকলিংক এর কথা মনে পড়লেই আমার মনে পড়ে আমাদের দেশের বড় বড় নেতাদের কথা,কি অবাক হচ্ছেন আমার কথা শুনে?আমি ব্যাকলিংক এর প্রয়োজনীয়তার কথা বললেই সবাকেই এই নেতাদের সাথে তুলনা করতে বলি।কিভাবে?

লোকবল সবচেয়ে বড় বল।মনে করুন আপনার অনেক টাকা পয়সা আছে কিন্তু কাজ করার জন্য কোন লোকেই আপনি পেলেন না তাহলে কি টাকা পয়সার কোন মুল্য আছে? না নেই।সেভাবেই একজন প্রভাবশালী নেতাও কিন্তু একা কোন মূল্য নেই।দেখবেন যে সে সবসময় চায় তার অনেক অনেক সাঙ্গ-পাঙ্গ ( লোকবল ) থাকুক।কেননা লোকবল যত বেশি হবে তার ক্ষমতার প্রভাবও ততো বেশি হবে।ফলে সে সব জায়গায় সে তার প্রভাব আরো বেশি করে খাটাতে পারবে।কিংবা যখন সে কোন কাজ করতে যাবে তখন যদি তার পক্ষেই সবাই ভোট বা সম্মতি দেয় তাহলে তার কাজ ও গ্রহনযোগ্যতাও অনেকাংশে বাড়বে।অতএবে সে বনে যাবে একজন পাওয়ার ফুল ম্যান হিসাবে

সার্চ ইন্জিন এর কাছে ব্যাকলিংক ও তেমনি।একটি সাইটের গুরুত্ব ও গ্রহনযোগ্যতা বাড়াতে ব্যাকলিংক বড়ানোর কোন বিকল্পই হয় না।এক একটি ব্যাকলিংক আপনার জন্য ভোট স্বরূপ।এর জন্য সার্চ ইন্জিন সবসময় খুজে বেড়ায় কোন সাইটের ব্যাকলিংক বেশি।কেননা আপনি ও হয়তো কখনো চাইবেন না একজন অযোগ্য প্রার্থীকে একটি গুরুত্বপূর্ণ আসনে বসাতে।এর জন্য সার্চ ইন্জিন ও তাদের প্রথম পেজটির জন্য বেশি গুরুত্ব দেয় ব্যাকলিংককে।

 

আর গুগল এই গুরুত্বকে সবার সামনে প্রকাশ করার জন্যই ব্যাবস্থা রেখেছে PageRank এর।পেজরেংক এর মাধ্যেম গুগল প্রকাশ করে যে ওয়েবসাইটটির গুরুত্ব বা রেংক কতটুকু।

 

অতএবে এ থেকে প্রমাণিত হয় যে আপনার পেজ রেংক বাড়ানোর জন্য ও সবচেয়ে দরকার ব্যাকলিংক বাড়ানো।

 

আবার মনে করুন একজন মানুষের পিছনে ১০০ লোক আছে।এর মধ্যে ৬০ জনই হল অন্ধ,বোবা, খোড়া ইত্যাদি।তাহলে কি হলো? তার কি ১০০ জন মানুষের কাজ ঐ লোক গুলো দিয়ে করা সম্ভব?কখনোই না।কারণ ১০০ জন লোক থাকলে ও তাদের জোর ও ক্ষমতা ২০ পরিপূরণ মানুষের সমান।তাছাড়া কোন কম্পানীও কিন্তু এমন অযোগ্য প্রথীকে কোন বড় পদে নিয়োগ দেয় না।

সার্চ ইন্জিন ও তার ব্যাতিক্রম নয়।আপনার হয়তো ১০০ টি ব্যাকলিংক আছে।কিন্তু আপনি যে পেজ থেকে আপনি ব্যাকলিংক পেয়েছেন সেগুলো যদি সার্চ ইন্জিনের কাছে কোন গুরুত্ব নাই থাকে তাহলে সেই ১০০টি ব্যাকলিং দিয়ে কোন লাভ নেই।সেগুলো হবে ভালো ভালো ২০টি ব্যাক লিংকের সমান।এমন আছে যে আপনার ১ টি PR 5-9 ব্যাকলিংকই পেজরেংক শূন্য ১০০টি ব্যাকলিংক এর সমান।

তাই যেন তেন বা মূল্যহীন ব্যাকলিংক বাড়ানোর জন্য অযথা সময় নষ্ট করবেন না ।সময় দিন এমন ব্যাকলিংক পেতে যেখান থেকে আপনি নিশ্চিত সুফল পাবেন। যদিও একটু বেশি সময় বা কষ্ট হয় তার পর ও আপনি চেষ্টা করে যাবেন।

 

আশা করি আপনারা সহজেই বুঝতে পারলেন যে ব্যাকলিংক কতটা গুরুত্বপূর্ণ।তাই সবসময় চেষ্টা করুন অন পেজ অপটিমাইজেশনের সাথে সাথে ব্যাকলিংক ও বড়ান সমান ভাব।প্রতেহ্য রুটিনের সাথে ২০-৩০ মিনিট বা তার ও বেশি সময় দিন শুধুমাত্র ব্যাকলিংক বাড়ানোর জন্য।

সময় ভাগ করে কার করুন অনপেজ অপটমাজেশন ও অফপেজ অপটিমাইজেশন নিয়ে।সাফল্য আপনার হাতে আসবেই আসবে।

 

 

  • লিঙ্ক বিল্ডিং কি এবং এর কিছু উপায়ঃ-

 

১৯৯০ সাল হতে সার্চ ইঞ্জিন লিঙ্ককে ভোট হিসাবে বিবেচনা করে আসছে। এটা এক ধরনের ডেমোক্রেসি বলা যায় যেখানে লিঙ্ক এর প্রাধান্য এর বিচারে কোন সাইট এর গুরুত্ত অনুধাবন করা হয়। তাই যেই সাইটের লিঙ্ক যত বেশি ভাল কোয়ালিটি সম্পন্ন সেই সাইট সার্চ ইঞ্জিনে প্রাধান্য পেয়ে থাকে। আর নিজের সাইটের জন্য এই লিঙ্ক সংগ্রহের উপায়কেই বলা হয় লিঙ্ক বিল্ডিং। অর্থ্যাৎ যেই মাধ্যমে বিভিন্ন উৎস হতে কোন সাইটের জন্য অন্য সাইট হতে ব্যাকলিঙ্ক নেয়া হয়ে থাকে তাকেই সংক্ষেপে লিঙ্ক বিল্ডিং বলে। আরেকটু বিস্তারিত বললে কোন সাইটকে সার্চ ইঞ্জিনে ভাল র‌্যাঙ্কিং এ নিয়ে যেতে এবং ভাল ট্রাফিক পাবার জন্য ওই সাইটের রিলেটেড ভাল, কোয়ালিটি সম্পন্ন সাইটের সাথে সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার উপায়কেই লিঙ্ক বিল্ডিং বলে। একটা কথা বলা বাঞ্ছনীয় যে মনে রাখবেন শুধুমাত্র লিঙ্ক বিল্ডিং মানেই এসইও না।

link-building-done-right

 

লিঙ্ক বিল্ডিং নিয়ে পরিস্কার এবং পরিপূর্ণ ধারণা পেতে আমি SEOMOZ এই আর্টিকেলটা পড়ার জন্য অনুরোধ করব সবাইকে – http://www.seomoz.org/beginners-guide-to-seo/growing-popularity-and-links

 

সাধারণত দুইভাবে সাইটের জন্য লিঙ্ক পেতে পারি আমরা। তাহল এক(লিঙ্ক বিল্ডিং)যেটা নিয়ে আমরা আলোচনা করছি দুই(লিঙ্ক আর্নিং) যেটা নিয়ে পরে আমরা আলোচনা করব।

 

লিঙ্ক বিল্ডিং এর বিভিন্ন মাধ্যম আছে যাকে কিনা আমরা সাধারণ ভাষাতে অফ পেইজ এসইও বলে থাকি। যেমন – সোশাল বুকমার্কিং, আর্টিকেল সাবমিশন, ফোরাম পোস্টিং, ব্লগ কমেন্টিং, গেস্ট ব্লগিং, ডাইরেক্টরি সাবমিশন ইত্যাদি। আমরা নিচে কিছু মাধ্যম নিয়ে আলোচনা করব।

 

  • সোশাল বুকমার্কিংঃ-

এই বিষয় নিয়ে রামকৃষ্ণ ভট্টাচার্য অনেক আগেই লিখেছেন ওই লিখাটাই এখানে ব্যবহার করা হল-

 

সোশালবুকমারকিংকিঃ সাধারণ অর্থে আমারা যখন আমাদের ব্রাউজার এ আমাদের পছন্দের কোন সাইট কে বুকমার্ক করে রাখি ঠিক তেমনি এটা হচ্ছে কিছু বুকমারকিং সাইট এ আমাদের সাইট কে বুকমার্ক করে রাখা। কিন্তু এখানে একটা বড় পার্থক্য আছে যা হল আপনি যখন আপনার একটা সাইট অথবা ব্লগ পোস্ট কোন সোশাল বুকমারকিং সাইট এ এড করেন, ওখানে অনেক ব্যাবহারকারী তাদের পছন্দের সাইটগুলো ও এড করে ফলে তা বড় একটা পছন্দের সাইটের ডাটাবেজ এ পরিণত হই এবং সবাই একে অন্যের সাইট দেখতে পারে। এটাই হচ্ছে ওয়েব ব্রাউজারের বুকমার্ক এবং সোশাল বুকমার্ক এর সাথে অমিল। এটাই সংক্ষেপে সামাজিক বুকমার্ক. যাই হোক সোশাল বুকমার্ক কি তাতে আর নাই বা গেলাম তা সবাই জানে এখন আসি এটা কেন ব্যাবহার করা হয়।

socialbookmarks

এটাকেনব্যাবহারকরাহয়ঃ যদি আপনার একটি সাইট অথবা ব্লগ থেকে থাকে যেখানে আপনি কোন নতুন ভিজিটর আশা করেননা, তাহলে আপনি এটা বাদ দিতে পারেন। কিন্তু সোশাল বুকমারকিং সাইটগুলো আপনাকে আপনার সাইট এর কন্টেন্ট রিলেটেড ট্যাগ এবং বিভাগ ব্যাবহার করে বুকমারকিং করার মাধ্যমে সাইট এ ট্রাফিক এনে দেয়ার সুযোগ করে দিবে। এছারাও বেকলিঙ্ক তৈরি তে সাহায্য করবে। আপনার সাইটের পেজ রেঙ্ক বাড়াতে সাহায্য করবে। শেষ কথায় যা বলতে চাই সোশাল বুকমারকিং ব্যাবহার করার বিশেষ কারণ গুলো হলঃ

  • কোয়ালিটি ব্যাকলিঙ্ক যা হচ্ছে একটা পপুলার অফপেজ সার্চ ইঙ্গিন মেথড যা ব্যাকলিঙ্ক দিবে আপনার সাইট কে বুকমার্ক করার মাধ্যমে।
  • টারগেটেড ট্রাফিক যা হচ্ছে কন্টেন্ট এবং সাইট কে ট্যাগ অথবা ক্যাটাগরি অনুযায়ী সোশাল বুকমারকিং সাইট এ সাবমিট করার মাধ্যমে টারগেটেড ট্রাফিক পাওয়া যাবে।
  • সাইট কে ব্রান্ডিং করার জন্য যা হচ্ছে যদি একটা ভাল বুকমারকিং সাইটে যথাযথ টাইটেল বা কী ওয়ার্ড দেয়ার মাধ্যমে আপনার রেগুলার আপডেট করা পোস্ট গুলো বুকমার্ক করা হয় তাহলে তা আস্তে আস্তে সাইটকে ব্র্যান্ড করতে সাহায্য করে।

 

কিভাবেসঠিকভাবেকরাযায়ঃ উপরের লেখাগুলো থেকে যা বুজলাম সোশাল বুকমারকিং খুবই প্রয়োজনীয় তাই এটা সঠিকভাবে করাটা খুবই জরুরি। তাহলে আমারা চলে আসি ধাপে ধাপে কিভাবে সঠিকভাবে বুকমার্ক করতে হয়।

  • বুকমার্ক করার জন্য অবশ্য প্রথম ধাপ হবে কিছু ভাল সোশাল বুকমারকিং সাইট খুজে বাহির করা।
  • এরপর সাইটগুলো তে রেজিস্ট্রেশান করা email, username, password ব্যাবহার করে। অতঃপর ইমেইল থেকে রেজিস্ট্রেশান কনফার্ম করা। এবার আমরা নির্দিষ্ট একটি সোশাল বুকমার্ক সাইট এর রেজিস্টারড মেম্বার হয়ে গেলাম।
  • এরপর আমরা আমাদের সাইট সাবমিট করব “ সাবমিট এ নিউ স্টোরি “ তে ক্লিক করার মাধ্যমে এরপর যে তথ্যগুলো আমাদের দিতে হবে সেদিকে সঠিক নজর রাখাটাই হচ্ছে প্রধান কাজ। প্রথমত আপনার টারগেটেড URL এবং টারগেটেড টাইটেল যা হবে আপনার মেইন কী ওয়ার্ড যেমন সাইটঃ lifescisoft [dot] com যার জন্য কী ওয়ার্ড হচ্ছে Life science software. এরপর হচ্ছে ক্যাটাগরি আপনার সাইটের সাথে মিল রেখে আপনি হুবুহু না হলেও কাছাকাছি একটি ক্যাটাগরি খুজে নিবেন যেমন এই সাইট এর জন্য “science or technology” যদি কিছু না থাকে তাইলে “news” দিয়ে দিবেন।
  • এরপর যা আসছে তা খুবই দরকারি বুকমারকিং এ যা হল (TAG) ট্যাগ। এটা আপনার কন্টেণ্ট এর প্রতিটা ওয়ার্ড কে ব্যাবহার করে সার্চ করতে সাহায্য করবে যা একধরনের শর্টকাট। তাই ট্যাগ এর সঠিক ব্যাবহার জানতে হবে। ট্যাগ বলতে একটি শব্দ অথবা দুটি যা পোস্ট সম্পর্কে বর্ণনা করবে সার্চ ইঞ্জিন কে।  যেমন, life science, life, science research, science. তাই সব সময় চেষ্টা করতে হবে যে কিভাবে ট্যাগ দিয়ে আমার পোস্ট হাইলাইট করা যায়।
  • এরপর (Description) বর্ণনা যা হবে আপনার পোস্ট অথবা সাইট এর সারমর্ম। অনেক সময় দেখা যাই কিছু বুকমার্ক সাইট আপনার দেয়া সারমর্ম গ্রহণ করেনা স্পাম কন্টেণ্ট দেখায় তখন চেষ্টা করবেন ওই সারমর্মতে একটু ভিন্নতা আনার তাতেই হয়ে যাবে।
  • অতঃপর ক্যাপচা এরপর সাবমিট।

 

কিছুবেক্তিগতটিপসঃ ১. টাইটেল এ অবশ্যই আপনার টারগেটেড কী ওয়ার্ড কে হাই লাইট করবেন। যদি ২ টা কী ওয়ার্ড থাকে একটা URL এর জন্য তাহলে আপনি টাইটেল এ এভাবে দিতে পারেন “Magento Help | Magento support”  ২. ট্যাগ এ অবশ্যয় আপনার অপশনাল কী ওয়ার্ড গুলো দেয়ার চেষ্টা করবেন।  যে সাইট গুলো তে ট্যাগ থাকবেনা ওগুলো তে ক্যাটাগরিটাই প্রধান তাই ওটা সঠিকভাবে দেয়ার চেষ্টা করুন। ৩. সবসময় চেষ্টা করবেন সোশাল বুকমারকিং সাইট গুলকে সোশাল ভাবেই ব্যাবহার করতে শুধু একটা লিঙ্ক সাবমিট করে ওটাকে ভুলে যাবেননা।  ৪. আপনার বুকমার্ক করা সাইটগুলো কে অন্য অ্যাকাউন্ট এর মাধ্যমে ভোট দেয়ার চেষ্টা করুন। ৫. আপনার সোশাল বুকমার্ক সাইট গুলকে ইন্টারলিঙ্ক করার চেষ্টা করুন যেমনঃ Linkedin প্রোফাইল এ Stumbleupon এর লিঙ্ক Stumbleupon এ Delecious এর লিঙ্ক আবার ওই প্রোফাইল গুলোর সাথে সোশাল মিডিয়া গুলকে লিঙ্কাপ করার চেষ্টা করুন। ৬. নতুন বুকমার্ক করা লিঙ্ক গুলো অবশ্যই পিং করতে ভুলবেন না।

 

শেষ কথা যা হল যদি আপনি সোশাল মিডিয়া সাইটের মত সোশাল বুক মারকিং সাইট গুলো ব্যাবহার করেন তাহলে অবশ্যই ব্যাকলিঙ্ক, ট্রাফিক, SERP পজিশন সবকিছুতেই সুবিধা পাবেন।

 

  • ফোরাম পোস্টিংঃ-

 

ফোরাম পোস্টিং এর বিষয়ে কথাগুলো লিখেছেন আমাদের ফোরাম মাষ্টার শুভ মঞ্জুরী ভাই

 

আমরা সকলেই জানি off-page SEO and traffic generation এ forum posting এর ভুমিকা। Forum posting হচ্ছে Traffic বাড়ানোর একটা ভাল উৎস এবং পাশাপাশি রিলেভেন্ট ব্যাকলিঙ্ক পাবার ক্ষেত্রে অন্যতম একটি উপায়। এটার গুরুত্ত আমরা কম বেশি সবাই জানি তাই এটা নিয়ে নতুন করে আর লিখলাম না।

 

FORUM POSTING এ করনীয়ঃ

 

# প্রথম কাজ হল relevant forum খুজে বের করা। relevant forum site খোজার জন্য নিচের process follows করুনঃ

How to Find Relevant Forums

KEYWORDS “powered by phpbb” inurl:/forum

KEYWORDS “powered by vbulletin” inurl:/forum

KEYWORDS “powered by smf” site: /forum

KEYWORDS “powered by phpbb” inurl:/community

KEYWORDS “powered by vbulletin” inurl:/community

KEYWORDS “powered by smf” inurl:/community

How to Find Relevant .edu forums

“powered by vbulletin” site:.edu

“powered by phpbb” site:.edu

“powered by smf” site:.edu

keyword+”forum”

keyword+”viwe topics”

Forum-Posting-www-seolix-com

 

#এরপরের কাজ হল forum registration করা । Registration করার সময় অবশ্যই অবশ্যই forum rules গুলো ভালোভাবে পড়ে নিতে হবে।

 

#Forum account create করার সময় personal mail account use না করে business mail account use better।

 

#Account create হয়ে গেলে mail validation process complete করুন.

Now registration process is complete.

USER CONTROL PANEL:

এই UCP তেই আপনার main কাজ। Registration complete করার পর আপনি আপনার profile complete করুন।যেমনঃ

1.upload avatar.

2.fill up your contact address like-mail id,social network id etc.

3.edit your signature.

EDIT SIGNATURE is an important step. Because, this is the key of your marketing strategy and promoting your site.

Signature এ এমন একটি keyword use করতে হবে যা একটি অথবা দুটি word দিয়ে আপনার total site কে represent করে।

 

NOW POSTING STAGE:

 

#AGAIN READ THE FORUM RULES BEFORE POSTING.

 

#Introduce yourself to the forum community.

 

#Stay on topic. Forum site যে topics এর ওপর সেই topics নিয়ে আলোচনা করুন। Irrelevant কোন কিছু আলোচনা করবেন না।

 

#Thread এর মাঝে কোন direct link দিবেন না. Mind it marketing করার দায়িত্ত আপনার Signature এর।আপনার না।আপনি শুধু quality post দারা visitor কে attract করতে পারেন।

 

#আপনার post অবশই unique, quality informative হতে হবে।

 

#Forum এ topic এর title must attractive হতে হবে। যেন visitor এক লাইনে আপনার post এর description বুঝতে পারে.

 

নিচের টপিকটি ভালমত পড়ূন –

 

#Don’t spam around the forum, otherwise you will be deleted from the forum permanently. এই ক্ষেত্রে না বললেই না যে এখন ফোরাম হচ্ছে স্পামিং এর সবচে ভাল উপায়। এবং তা আমরাই করেছি। কিন্তু যদি ঠিক মত ব্যবহার করা যাই ফোরাম পোস্টিং এখনো কাজের জিনিষ। তাই বলব স্পামিং না করে ফোরাম প্রোফাইল্ ঠিক মত সাজান। সব ইনফো এড করুন। প্রতিদিন না পারলেও সপ্তাহে ২/৩ বার ফোরামে এক্টিভ থাকুন যাতে স্পামিং না হয় এবং ন্যাচারাল লাগে। এক কথায় ফোরাম প্রোফাইল্ কে লাইভ রাখুন। তাহলে অবশ্যই কাজ হবে।

আমি কয়েকদিন ধরে এসইও নিয়ে কাজ করছি। খুবই অল্প জানার পরিধি থেকে কিছু লিখার প্রয়াস। আশা করি ভুল হলে ক্ষমা করবেন। সানি আহমেদ যোগাযোগ ;- http://www.facebook.com/sany.ahmed

0 comments

  1. Refat Hossain   •  

    অসাধারন লাগলো তবে একটা প্রশ্ন , পান্ডা আপডেটের পর থেকে নাকি নোফলো ব্যাকলিংককেও ব্যাকলিংক হিসেবে কাউন্ট করা হচ্ছে ? র‍্যাংকিং এর ক্ষেত্রে নোফলো ব্যাকলিংকের ভুমিকা কতটুকু ?

  2. Roshidul hasan hadi   •  

    খুবই সুন্দর পোস্ট। এককথায় অসাধারণ। প্রথম কমেন্টার হিসাবে খুবই ভাল লাগতেছে। সোশাল বুকমারকিং নিয়ে কিছু সন্দেহ ছিল যেগুলা এই পোস্ট পরার পর দূর হই গেছে। ধন্যবাদ সবাইকে।

  3. Mahmud   •  

    This post is useful not only seo learner but also all seo worker who earn money online by freelancing in seo segment. Thanks for share your experience.

  4. Polash   •  

    আপনাদের আর নতুন করে ধন্যবাদ দিতে চাই না।

  5. Janlewala   •  

    অনেক গুরুত্বপূর্ণ কথা শেয়ার করলেন। সবগুলো ক্লাশই ভালো হইছে। তবে আপনাদের নতুন টিউন পেতে অনেক দিন অপেক্ষা করতে হয়।

  6. ABCD   •  

    আপনাদেরকে ধন্যবাদ ।এমন একটা অসাধারন Article এর জন্ন।আমার একটা প্রস্ন ছিল………।
    ‘নতুন বুকমার্ক করা লিঙ্ক গুলো অবশ্যই পিং করতে ভুলবেন না।’এখানে বুকমার্ক করা লিঙ্ক বলতে কি বুঝান hoyece?
    submit e new story te je link submit korbo oita naki profile e amar main site er link submit korbo oita.

  7. sharif   •  

    Thanks for good informatin..এই পদ্ধতি টা অনেক ভাল

  8. ইমন   •  

    অনেক ভালো লিখেছেন। আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ ভালো কিছু লিখার জন্য। আপনার ব্লগের মতো করে সবাই যদি পরিষ্কার করে সকল কিছু আলোচনা করতো তবে আমার মতো নতুন সবাই উপকৃত হতো।

    আমার একটি সাইট করেছি নতুন। আমি ভালো করে কিছু এখনো শিখতে পারি নি। তবে শেখার চেষ্টা করছি। আমার জন্য দোয়া করবেন। আপনার মতো করে আমি যেন নিজেকে গড়তে পারি। আমার ব্লগটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

    ধন্যবাদ সবাইকে।

  9. atik   •  

    তথ্যবহুল পোস্টের জন্য কৃতজ্ঞ ভাইয়া। অসংখ্য ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য ।

  10. rafsan-samir   •  

    This is indeed an useful post. All thing I understand except the mattet of finding relevant post. Please specify me the procedure once again.
    (KEYWORDS “powered by vbulletin” inurl:/forum)
    what exactly it means.
    Thanks

  11. Khorshed Alam   •  

    সুন্দর লিখেছেন। আমার মত নতুন দের অনেক উপকারে আসবে

  12. Onirbachito agontuk   •  

    অনেক তথ্যবহুল পোস্ট। অসংখ্য ধন্যবাদ শেয়ার করার জন্য ।

  13. জাহিদ   •  

    অনেক দিন পরে আজ বুঝতে পারলাম ব্যাকলিংক ও ফোরাম পোস্টিং কি । সবাইকে ধন্যবাদ। [বাংলিশ থেকে অনুবাদিত বাই এডমিন]
    @জনাব জাহিদ সাহেবঃ দয়াকরে বাংলাতে বা ইংলিশে মন্তব্য করুন আর “নামের” স্থানে নাম সুন্দর দেখায় “কি ওয়ার্ড নয়”। ধন্যবাদ

  14. GM KONOK   •  

    Akhone ame social book marking somporke onek tai clear. Jeta amar site er link building a onek help korbe. R o onek update chai. Thanks for share this article.

  15. afzalhosen   •  

    thanks thanks thanks, May ALLAH bless you. I want more and more learn from you.

  16. Abu Raihan   •  

    নিয়োতিম পোস্টের আশা করছি :P

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

আপনি চাইলে এই এইচটিএমএল ট্যাগগুলোও ব্যবহার করতে পারেন: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>